পিতা মাতা ও সন্তানের মধ্যকার সম্পর্ক পৃথিবীর সবচেয়ে মধুর সম্পর্ক। কারণ পিতা মাতার সাথে সন্তানের আত্মিক বন্ধন থাকে। থাকে নাড়ির টান। বাবা মা সন্তানকে নিঃস্বার্থভাবে ভালবাসেন। পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর উপহারটি আদরের সন্তানকে দিতে চান তারা।

অনেক সময় অর্থ ও সামর্থ্যের কারণে ইচ্ছা ও অভিরুচি অনুযায়ী প্রিয় উপহারটি কেনা সম্ভব হয় না। তবুও বুক ভরা ভালবাসা, মায়া ও মমতার কোনো কমতি থাকে না। আদরের সন্তানের মুখে হাসি ফোটাতে বাবা মা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেন। সন্তানকে লালন পালন করতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেন। আবার সন্তানের সামান্য অর্জনে তারা পান পাহাড় জয়ের মতো আনন্দ।

আসছে ভালোবাসা দিবস। আর এ দিনে প্রতিটি মানুষ তাদের হৃদয়ের গভীর কথাগুলো প্রিয়জনের কাছে ব্যক্ত করে এবং সেরা উপহারটি প্রদান করে। আপনি আপনার আদরের সোনামণিকে কী উপহার দেবেন, কীভাবে চমকে দেবেন কিংবা কীভাবে আপনার মনের কথাগুলো জানাবেন তা ভেবেছেন কি? হয়তো ভেবেছেন উপহারের ব্যাপারে তবে কী দেবেন তা হয়তো এখনো ঠিক করতে পারেননি। যদি তাই হয় তাহলে এই লেখাটি আপনার জন্য। জেনে নিন ভালবাসা দিবসে আদরের সোনামণিকে কী উপহার দেবেন তা সম্পর্কে।

বই

বই পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ উপহার। কেননা বই পড়লে জ্ঞানী হওয়া যায়। আপনার সন্তানকে যদি ভালবাসা দিবসে কিছু কিনে দিতে চান তাহলে বেছে নিতে পারেন দারুণ কিছু বই। আপনি তাকে বই উপহার দিলে সে নিশ্চয় বই পড়বে এবং জ্ঞান অর্জনে সচেষ্ট হবে।

আপনার সন্তান যদি দশ বছরের ছোট হয় তাহলে তাকে কিনে দিতে পারেন মজার মজার গল্পের বই, উপদেশমূলক বই, নৈতিকতার বই। অর্থাৎ এমন বই কিনে দিন যেন তা থেকে সে আনন্দ লাভের পাশাপাশি জ্ঞান অর্জন করতে পারে।

বই; Source: This Little Home of Mine

আপনি যদি আপনার সন্তানকে বাংলাদেশের ইতিহাস সম্পর্কে জানাতে চান তাহলে ইতিহাস সম্পর্কিত লেখা আছে এমন বই কিনে দিন। আপনার কৈশোরে পা রাখা সন্তানকে দিতে পারেন অনুপ্রেরণা মূলক বই, সফলতা অর্জনের বই এবং শিক্ষণীয় গল্পের বই। শুধু তাই নয়, বইয়ের সাথে আপনি উপহার দিতে পারেন একটি লাল গোলাপ কিংবা এক বক্স মজাদার চকোলেট। চকোলেট নির্বাচনের ক্ষেত্রে সন্তানের পছন্দকে প্রাধান্য দিন।

খেলার পুতুল

শৈশব মানেই পুতুল নিয়ে সারাদিন খেলা করা। শৈশব মানে আনন্দে দিন কাটানো। আপনার কন্যা সন্তানের শৈশবকে রোমাঞ্চকর ও সুন্দর করে তুলতে তাকে উপহার দিতে পারেন পুতুল। কারণ মেয়েরা পুতুল নিয়ে খেলতে ভালবাসে। পুতুলের চুল বাধা, পুতুলকে জামা পরানো, পুতুলের জন্য মিছেমিছি রান্না করা মেয়েদের শৈশবের চমৎকার অনুসঙ্গ। বিভিন্ন মার্কেটে পুতুল পাওয়া যায়।

বেগুনি রঙের পোশাকে পুতুল; Source: Toy Shop BD

আপনি যদি অনলাইন পেইজ থেকে পুতুল কিনতে চান তাহলে বেছে নিতে পারেন টয়শপ বিডিকে। কেননা টয়শপ বিডিতে রয়েছে চমৎকার কিছু পুতুল যা আপনার সন্তানকে উপহার দিলে সে খুশি হবে। এখনের পুতুলগুলো কিনতে পারবেন সাশ্রয়ী মূল্যে।

লাল পোশাকে পুতুল; Source: Toy Shop BD

এখানের পুতুলের গায়ে সুন্দরভাবে লেখা ‘ইউ আর বিউটিফুল’  অর্থাৎ তুমি সুন্দর, ‘হ্যাপি এভরিডে’ ইত্যাদি। এই কথাগুলো সন্তানের মনে বাবা মায়ের জন্য আলাদা সম্মান ও বিশ্বাস তৈরি করবে। প্রতিটি পুতুলের গায়ে রয়েছে ভিন্ন রঙের পোশাক।

হালকা গোলাপী পোশাকে পুতুল; Source: Toy Shop BD

মেয়েরা পুতুল খেলতে খেলতে মনের অজান্তেই বুঝে নেয় নিজেকে গুছিয়ে নেওয়ার কথা। শৈশবে যদিও এসব কথা মাথায় আসে না, তবুও অবচেতন মনে যেন তাই খেলা করে। পুতুলের বিয়ে দেয়ার মাঝে এক অনাবিল আনন্দ খুঁজে নেয় তারা।

গাড়ি; Source: Toy Shop BD

পুত্র সন্তানের জন্য বেছে নিতে পারেন খেলনা গাড়ি, প্লেন, বন্দুক, টকিং টম, ম্যাজিক স্কয়ার ইত্যাদি। টয়শপ বিডি ছাড়াও মি এন্ড মম, হ্যারোডস ও হলমার্ক থেকে আপনার সন্তানের জন্য সেরা উপহারটি বেছে নিতে পারেন।

খেলনা প্রাণী; Source: aliexpress.com

পুতুল ছাড়াও আপনি বেছে নিতে পারেন টেডি বিয়ার, পছন্দের প্রাণী আকৃতির পুতুল, খেলনার অন্যান্য সামগ্রী ইত্যাদি।

পোশাক

ভালবাসা দিবসে বাবা মায়ের কাছ থেকে পোশাক উপহার পেতে কে না ভালবাসে। বিশেষ দিনে আপনার আদরের সোনামণিকে উপহার দিতে পারেন পোশাক। শিশুরা উপহার পেতে ভালবাসে। আর উপহার যদি হয় পোশাক তাহলে তো কথা নেই। আনন্দে একেবারে গদগদ হয়ে যাবে। আপনার কন্যা সন্তানের জন্য বেছে নিতে পারেন সুন্দর ফ্রক, স্কার্ট, টপস, জিন্স, জ্যাগিংস, ল্যাগিংস ইত্যাদি।

পোশাক; Source: dhgate.com

আপনার পুত্র সন্তানের জন্য কিনতে পারেন শার্ট, টি-শার্ট, লেদার জ্যাকেট, থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট ইত্যাদি। বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্ক, হকার্স মার্কেট, নিউমার্কেট, টোকিও স্কয়ার, প্রিন্স বাজারে ছোটদের ভালো পোশাক পাওয়া যায়। আপনি এ সকল শপিং কমপ্লেক্স ও মার্কেট থেকে পোশাক কিনতে পারেন। এছাড়াও মোহাম্মদপুরের বাসন্তী, ফড়িং, স্পাইডার, লামিয়া, পাতাবন ইত্যাদি শো রুমে ভালো পোশাক পাওয়া যায়।

চকোলেট ও কেক

শিশুরা চকোলেট ও কেক ভীষণ পছন্দ করে। আপনি ভালবাসা দিবসে সন্তানকে চমকে দিতে পারেন চকোলেট অথবা কেক উপহার দিয়ে। কিটকাট, ডেইরি মিল্ক, ডেইরি মিল্ক সিল্ক, সাফারি, চকোবিন, কোকোলা জেমস ইত্যাদিসহ আরো অনেক চকোলেট উপহার দিতে পারেন। এছাড়া অফিস শেষে বাসায় কেক নিয়ে হাজির হলে সন্তানকে চমকে দিতে পারবেন। সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে কেক কেটে সুন্দর একটি বিকেল উদযাপন করলে আপনার সন্তান খুশি হবে।

কার্ড

আপনার বিদ্যালয়গামী শিশুকে উপহার হিসেবে দিতে পারেন কার্ড। তবে সাধারণ কার্ড না দিয়ে মিউজিক কার্ড দিলে শিশুরা বেশি খুশি হবে। মিউজিক কার্ড খোলার সাথে সাথে চমৎকার মিউজিক বাজবে যা দেখে সন্তান আনন্দ পাবে। সাধারণ কার্ড দিলে খেয়াল রাখবেন কার্ডের লেখাগুলো যেন ইতিবাচক ও রুচিশীল হয়।

নান্দনিক কার্ড; Source: happy-valentines-day.info

কার্ডের লেখাগুলো যেন সন্তানের প্রতি আপনার অগাধ ভালোবাসা ও নির্ভরতা প্রকাশের প্রতীক হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। হলমার্ক, আর্চিজ, আজাদ প্রোডাক্টসসহ আরো অনেক দোকানে কার্ড পাওয়া যায়।

Featured Image Source: LDS.org

লেখক – Rikta Richi

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here